মুহুরী নদীতে গোসলে নেমে নৌবাহিনী সদস্যের মৃত্যু

ফেনী প্রতিনিধি ।।
প্রকাশ: ১ মাস আগে

ফেনীর পরশুরামে মুহুরী নদীতে গোসলে নেমে নিখোঁজ নৌবাহিনী সদস্য মো. আবুল হাসান সাইফুলের (২১) মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার (২০ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৯টার দিকে চট্টগ্রাম থেকে আসা ডুবুরি দলের সদস্যরা নদীর গভীর থেকে প্রায় ৭ ঘণ্টা পর মরদেহটি উদ্ধার করেন।

পরশুরাম থানার ওসি মোহাম্মদ শাহাদাৎ হোসেন খান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মরদেহের সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে।

এর আগে, একইদিন মুহুরী নদীতে দুপুরে গোসল করতে নেমে মো. আবুল হাসান সাইফুল নিখোঁজ হন। ফেনীর পরশুরাম উপজেলার চিথলিয়া ইউনিয়নের উত্তর শালধর গ্রামের খুন্ডের পাড় এলাকায় নাজির বাড়ি সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পরশুরাম ও ফুলগাজী ফায়ার সার্ভিসের দল উদ্ধার তৎপরতা চালিয়ে ব্যর্থ হওয়ায় চট্টগ্রাম থেকে বিশেষ ডুবুরি দল এসে আবুল হাসানের মরদেহ উদ্ধারে অভিযান চালায়।

মো. আবুল হাসান সাইফুল ইউনিয়নের উত্তর শালধর গ্রামের নজির বাড়ির আবুল খায়েরের ছেলে। তিনি ২০২১ সাল থেকে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর চট্টগ্রাম নৌঘাঁটিতে সৈনিক পদে কর্মরত রয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ঈদে ছুটিতে বাড়ি আসেন হাসান। তীব্র গরমে অতিষ্ঠ হয়ে শনিবার দুপুরে এলাকার বন্ধুদের সঙ্গে মুহুরী নদীর নাজির বাড়ি সংলগ্ন ঘাট দিয়ে গোসলে নামেন তিনি। হঠাৎ পানিতে ডুবে গেলে চার বন্ধু তাকে উদ্ধারের চেষ্টা করেন। পরে খবর পেয়ে পরশুরাম ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা গিয়ে দীর্ঘ সময় খোঁজাখুঁজি করেও তাকে উদ্ধার করতে পারেনি। পরে চট্টগ্রামের ডুবুরি দল এসে উদ্ধার অভিযান চালায়।

পরশুরাম ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন লিডার হুমায়ুন কবির বলেন, বিকেলে খবর পাওয়ার পর মুহুরী নদীতে পরশুরাম ও ফুলগাজী ফায়ার সার্ভিসের দল উদ্ধার তৎপরতা চালায়। সন্ধান না পাওয়ায় চট্টগ্রাম থেকে ডুবুরি দল এসে রাত সাড়ে ৯টার দিকে মরদেহটি উদ্ধার করে।