লুকিয়ে লুকিয়ে প্রেমের চিঠি লিখবো, এটা কি বাবা-মাকে বলা যায়

আ’লীগের সঙ্গে আলোচনা প্রসঙ্গে চুন্নু
স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ৪ মাস আগে

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে ক্ষমতাসীন দলের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক করছে জাতীয় পার্টি (জাপা)। গুঞ্জন আছে, নির্বাচনে নিজেদের আসন সংখ্যা চূড়ান্ত করতে আওয়ামী লীগের সঙ্গে এতবার বৈঠক করছে জাপা। বিষয়টি উঠে আছে সাংবাদিকদের সঙ্গে জাপা মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নুর আলাপকালেও।

আওয়ামী লীগের সঙ্গে বার বার আলোচনা কেন এবং আলোচনার বিষয় নিয়ে জানতে চাইলে চুন্নু বলেন, ‘লুকিয়ে লুকিয়ে প্রেমের চিঠি লিখবো, এটা কি বাবা-মাকে প্রথমে বলা যায়? আত্মীয়- স্বজনকে বলা যায়? বলা যায় না। পরে যখন হয়ে যায়, তখন বলা যায়।’

প্রেমের সম্পর্ক কতদূর এগিয়েছে- এমন প্রশ্নে জাপা মহাসচিব বলেন, ‘প্রেম এমন সম্পর্ক; প্রেম হয়, বিরহ হয়। আবার গভীর হয়, আবার বিরহ হয়। প্রেমের তো শেষ পরিণতি বিয়ে।’ তবে প্রেমে সবাই নায়ক হতে চায় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

শনিবার (১৬ ডিসেম্বর) বনানীতে জাপা চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি। ক্ষমতাসীনদের সঙ্গে কৌশল নিয়ে আলোচনা হলেও কোনো জোট নিয়ে আলোচনা হয়নি বলেও জানান চুন্নু।

জাপা মহাসচিব বলেন, ‘৭ তারিখের (৭ জানুয়ারির) আগ পর্যন্ত ক্ষমতাসীনদের সঙ্গে ভোটের সার্বিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে। কাল হয়েছে, আজকেও হবে। এর পরেও হবে। ১৮ তারিখ প্রতীক বরাদ্দ, তার পরেও হবে। আমরা দৃষ্টান্ত রাখতে চাই, ভোটে আমরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবো, কিন্তু ভোটকে সুষ্ঠু করার জন্য দুই দলই প্রয়োজনে আমরা মাঝেমধ্যে বসবো। আমার কৌশল সবগুলো কি প্রকাশ করবো? এটা কি কেউ করে?’

তিনি বলেন, ‘একটি নির্দিষ্ট বিষয়ে বৈঠক করিনি। আগেও বলেছি, এখনো বলছি। নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি নিয়ে সময়ে সময়ে কথা বলেছি আওয়ামী লীগের সঙ্গে। আপনারা যেটা ইঙ্গিত দিলেন, সেটাও অনেক সময় হয়। সংসদীয় রাজনীতিতে অনেক সময় দেখা যায় স্পিকার, ডেপুটি স্পিকার পদে যারা থাকেন তাদের আসনে নির্বাচন করেন না। ব্রিটিশ সংসদে এই ধরনের একটা নজির আছে। ভারতীয় সংসদসহ অনেক সংসদে দেখা যায় অনেক বিজ্ঞ বিজ্ঞ লোক আছেন। সেখানে দেখা যায় ভালো লোক যারা, ভালো সংসদ সদস্য- তাদেরকে অনেক সময় ছাড় দেওয়া হয়।’

মুজিবুল হক চুন্নু আরও বলেন, ‘এটা তো ঠিক, সব দল তার নিজস্ব প্রয়োজনে যে কোনো টেকনিকে একজন আরেকজনের সঙ্গে কথা বললে সবাই নিজের সুবিধাটা পেতে চায়। সেটা তো সবার বেলায় ঠিক।’