স্বামীর মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারে দাবী জানিয়ে কাউন্সিলর কিবরিয়ার স্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১ মাস আগে

স্টাফ রিপোর্টার।।

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের ১নং ওয়ার্ডের নব নির্বাচিত কাউন্সিলর কাজী গোলাম কিবরিয়ার স্ত্রী ডা. আমেনা খাতুন অভিযোগ করেছেন আমার স্বামী ও কুসিকের ১নং ওয়ার্ডের জনপ্রিয় কাউন্সিলর কাজী গোলাম কিবরিয়াকে চিরতরে শেষ করে দেওয়ার জন্যই একের পর এক মিথ্যা মামলা দায়ের করে তার জীবনকে দূর্বিষহ করে তুলছে। আমাদের বাড়ি থেকে ৫/৬ কিলোমিটার দূরের একটি ঘটনাকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য আমার স্বামীর বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

মঙ্গলবার নগরীর বিঞ্চুপুরস্থ নিজ বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দাবি করেন।

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের ১নং ওয়ার্ডের নব নির্বাচিত কাউন্সিলর কাজী গোলাম কিবরিয়ার স্ত্রী ডা. আমেনা খাতুন আরো বলেন, নিহত যুবক মোঃ ইয়াছিন হোসেন রবিকে আমার স্বামী কাউন্সিলর কাজী গোলাম কিবরিয়া কোন দিন স্বচোক্ষে দেখেননি। নিহত যুবকের সাথে অথবা তার পরিবার এর সাথে আমার স্বামীর কোন রকম আত্মীয়তা অথবা শত্রুতা ছিলো না। নিহত ব্যক্তি কাউন্সিরর গোলাম কিবরিয়ার এলাকার বাসিন্দাও নহে। মামলার এজহার এর মাধ্যমে জানতে পারি নিহত যুবকের বাড়ী টিক্কাচর পূর্ণিমা বাড়ী। যেটা কাজী গোলাম কিবরিয়ার বাড়ী থেকে আনুমানিক ৪/৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। নিহত সেই যুবক আমার স্বামীর সমবয়সীও নয় যে তার সাথে বন্ধুত্বের সম্পর্ক থাকবে।

আমার জ্ঞাতমতে পূর্বে কোনদিন ঐ নিহত যুবকের সাথে স্ব-শরীরে অথবা মোবাইল কখনো যোগাযোগ হয়নি। নিহত সেই যুবকের সাথে গোলাম কিবরিয়ার কোন সম্পর্ক নেই। ঘটনার সময়ে সর্বদা গোলাম কিবরিয়া নির্বাচনি প্রচার প্রচারনায় ব্যস্ত ছিলেন। এটাই স্পট প্রতিয়মান হয় যে, আমার স্বামীর প্রতিপক্ষ সিটি নির্বাচনে পরাজিত হয়ে সম্পূর্ণ উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে কাজী গোলাম কিবরিয়াকে মিথ্যা, বানোয়াট ও ষড়যন্ত্রমূলক হত্যা মামলায় ফাঁসানোর জন্য এই মামলায় কিবরিয়ার নাম অন্তর্ভূক্ত করিয়েছেন। আমরাও হত্যাকারীর সুষ্ঠু বিচার চাই তবে যেনো কোন নিরাপরাধ ব্যক্তিকে ফাঁসানো না হয়।

ডা. আমেনা খাতুন আরো বলেন, তিন বারের কাউন্সিলর ও মিথ্যা আরেকটি মামলায় করাগারে আটক কাজী গোলাম কিবরিয়ার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা হত্যা মামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই এবং ১ নং ওয়ার্ডবাসীকে ষড়যন্ত্রমূলক হত্যা মামলার বিষয়ে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করছি।
আমি দাবি করছি, অত্র মামলার সঠিক ও নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে ঘটনার সাথে জড়িতদের কে শাস্তির আওতায় নিয়ে আসা হউক এবং নিরপরাধ কাউন্সিলর গোলাম কিবরিয়াকে অত্র মামলা থেকে পরিত্রান দেওয়া হউক।