সংবাদ শিরোনাম
শুক্রবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং | ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
মেঘনায় পুলিশের ধাওয়া খেয়ে নদীতে পড়ে মাদক ব্যবসায়ীর মৃত্যুকুমিল্লায় মডেল ইউনিয়ন পরিষদে সনাকের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিতকুমিল্লায় দুই বছরের সাজা প্রাপ্ত আসামী গ্রেফতারকুমিল্লায় বাংলা বানান শুদ্ধিকরণ অভিযানকুমিল্লার হোমনায় পূর্ব শত্রুতার জেরে যুবককে কুপিয়ে হত্যানববধূ অপহরণ চেষ্টার মামলায় ছাত্রলীগ নেতা ইসমাইল গ্রেফতারস্কুল ছাত্রকে মেরে বালু চাপা দেয়ার মামলায় দুই আসামি কারাগারেকুমিল্লায় ৩ দিন ব্যাপী বই মেলা শুরুঅপসংস্কৃতি বর্জন ও দেশীয় সংস্কৃতি চর্চায় শিক্ষার্থীদের উৎসাহিত করতে হবে ————এড.টুটুলচৌদ্দগ্রামে গৃহবধু হত্যা মামলার আসামীসহ গ্রেফতার ১৩ট্রাক্টরের চাপায় কুমিল্লায় শিশু নিহতবিএনপি নেতা কর্নেল আজিমের বড় ভাইয়ের ইন্তেকালমুরাদনগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ, নিষ্ক্রিয় বিএনপিহোমনার ১৫০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শহিদ মিনার নেই!কুমিল্লায় ভাতিজার চাপাতির কোপে চাচার মৃত্যুকুমিল্লায় এক ছাত্রকে বালু চাপা হত্যার পর মুক্তিপন নিতে এসে অপহরণকারী আটককুমিল্লায় বিজিবির অভিযানে বিপুল পরিমান মাদক আটকসরকারি হাসপাতালের ওষুধের অবৈধ গোডাউনে র‌্যাবের অভিযানসংসদ নির্বাচনের মতো সিটি নির্বাচনেও একই পরিবেশ থাকবে : সিইসিহোমনায় আপন দুই ভাইসহ সাত জনের কারাদন্ড

গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন : ‘মেয়র সাহেব বলছে, এটা নিয়ে নাও’

সময় তখন সাড়ে ১২টা। গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ৩৭ নম্বর ওয়ার্ড়ের ২৪৬ নম্বর কেন্দ্র। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মির্জা ইব্রাহীম মেমরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ে স্থাপন করা হয়েছে ২টি মহিলা কেন্দ্র। পাঁচজন সাংবাদিক একটি কেন্দ্রের বুথে প্রবেশ করেন। সেখানে তারা এক যুবককে ৮টা ব্যালট হাতে ভোট দিতে দেখেন। কাছে গিয়ে সাংবাদিকরা যুবককে কি করছেন, হাতে এতগুলো ব্যালট কেন জানতে চান।

জবাবে ওই যবক বলেন, বয়স্ক মানুষকে সাহায্য করছেন। এরপর পেছন থেকে সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তা এসে সাংবাদিকদের প্রিসাইডিং কর্মকর্তার কক্ষে নিয়ে যান। সঙ্গে ছিলেন পুলিশের এসআই আসিফ। প্রিসাইডিং কর্মকর্তা হারুন উর রশীদ সাংবাদিক পরিচয় পাওয়ার পর বলেন, এ কেন্দ্রে সকাল থেকে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। সুষ্ঠুভাবে ভোট গ্রহণ চলছে। সাংবাদিকরা ওই যুবকের কথা উল্লেখ করলে তিনি বলেন, মাত্র অভিযোগটি পেলাম। আর কোনো অভিযোগ পাইনি। ১২টা ৪০ মিনিটে কেন্দ্রের বাইরে কৃত্রিম গোলযোগ সৃষ্টি করে আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়রের সমর্থকরা। এসময় ভোটারদের বের করে দিয়ে পুলিশ বিদ্যালয়ের গেট লাগিয়ে দেয়। বাইর থেকে বিএনপির কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকরা গেটে ধাক্কা দিতে থাকে। পুলিশ অস্ত্র উচিয়ে তাদের সরে যেতে বলে। ঘটনার সময় কেন্দ্রের বুথগুলো থেকে ১-১০০ জন পুরুষ বের হয়ে আসে। তাদের সবাই নৌকার ব্যাজধারী। এরপর এসআই আসিফের মোবাইল নিয়ে এসে প্রিসাইডিং অফিসারকে কথা বলতে বলেন। প্রিসাইডিং অফিসার মোবাইলের অপর পাশে থাকা ব্যক্তিকে জানান, তার কেন্দ্রে ভোট রয়েছে ৩৪০০। সকাল থেকে ভোট দিয়েছেন ৯৪৪ জন। তখন মোবাইলের অপর প্রান্ত থেকে ১২০০ ভোট কাস্ট করার কথা জানানো হয় প্রিসাইডিং কর্মকর্তাকে। পরে ওই কক্ষে নৌকার ব্যাজধারী একজন চল্লিশোর্ধ্ব এক ব্যক্তি প্রবেশ করে বলেন, মেয়র সাহেব বলছে, এটা নিয়ে নাও। এ ঘোষণায় বুথগুলো থেকে বেরিয়ে আসা পুরুষরা আবার বুথে ফিরে যায় এবং জাল ভোট দিতে থাকে। এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে প্রিসাইডিং অফিসার বলেন, ভোটাররা ভোট দিচ্ছে। কোনো জাল ভোট হচ্ছে না। ভোটররা তো বাইরে, বিদ্যালয়ের গেট বন্ধ তাহলে কিভাবে তারা ভোট দিচ্ছেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভেতরে যারা আছে তারা ভোট দিচ্ছেন। পরে ১টার দিকে ওই কেন্দ্র থেকে সাংবাদিকদের বের করে দেয়া হয়। এদিকে এ কেন্দ্রে ঝামেলার সময় পাশের আরেকটি পুরুষ কেন্দ্র মাহিরা উচ্চ বিদ্যালয় দখলে নিয়ে নেয় আওয়ামী লীগ সমর্থিতরা।

সংবাদটি শেয়ার করুন............
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *