কুমিল্লায় আবারো ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় প্রসূতিসহ নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ

সোহাইবুল ইসলাম সোহাগ/জাহিদ হাসান।।
প্রকাশ: ৩ মাস আগে

কুমিল্লা নগরীতে ভুল চিকিৎসায় মা ও নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার (১৮ মার্চ) রাতে নগরীর ঝাউতলার মেডিকেয়ার জেনারেল হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সুলতানা বেগম (৩৪) নগরীর উত্তর কালিয়াজুড়ি এলাকার মোঃ লিটন মিয়ার স্ত্রী।

নিহতের স্বামী লিটন মিয়া জানান, সুলতানাকে ডেলিভারির জন্য বিকালে ডা. সরতাজ বেগমের পরামর্শে মেডিকেয়ার জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। পরে রাত ১০ টার দিকে সিজারের জন্য সুলতানাকে ওটিতে নিয়ে যাওয়া হয়। তখন, সুলতানা আমাকে জানায় বাচ্চা তার পেটে নড়াচড়া করতেছে। কিন্তু, সিজারের পরে ডাক্তার এসে বলে বাচ্চা মারা গেছে, কিন্তু সুলতানা ভালো আছে, সমস্যা নেই। এই কথা বলার আধা ঘণ্টা পরে ডাক্তার আবার এসে বলে, রোগীর অবস্থা ভালো না, মেডিকেলে নিয়ে যান। পরে, মেডিকেলে নিয়ে গেলে ভোর ৬ টায় আমার স্ত্রী সুলতানাকে আমি চিরতরে হারাই। ডাক্তারের ভুলের কারণেই এমনটা হইছে। আমার বউ-বাচ্চা সবই হারাইলাম, এখন আমি কই যাবো।

মেডিকেয়ার হাসপাতালের পরিচালক সাব্বির আহম্মেদ বলেন, রোগীকে সিজার করানোর পর তার বাচ্চা মৃত হয়। পরে, রোগীর একটি বিরল রোগ ধরা পড়ায় তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে। সেখানে রোগী মারা গিয়েছে।

এই বিষয়ে কুমিল্লা জেলা সিভিল সার্জন ডা. নাছিমা আকতার বলেন, এই বিষয়ে অভিযোগ পেলে আমরা তদন্ত করে দ্রুত ব্যবস্থা নিবো।

এই বিষয়ে অভিযুক্ত ডা. সরতাজ বেগমের কাছে জানতে মুঠোফোনে একাধিকবার চেষ্টা করলে তাকে পাওয়া যায় নি।