কুমিল্লায় বর্তমান এমপির সমর্থকদের উপর সাবেক এমপি সমর্থকদের হামলা : আহত ১০

রহিম মেম্বারের অবস্থা আশঙ্কাজনক-ভাগিনা #রহিম মেম্বারের নেতৃত্বে হামলা হয়েছে-খোরশেদ
স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ৩ সপ্তাহ আগে

#পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে-ওসি

সোহাইবুল ইসলাম সোহাগ ।।
কুমিল্লা মুরাদনগর আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য জাহাঙ্গীর আলম সরকারের সমর্থকদের উপর হামলার অভিযোগ উঠেছে সাবেক সংসদ সদস্য ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুনের সমর্থকদের বিরুদ্ধে।
শুক্রবার (৩১ মে) উপজেলার বাঙ্গরা বাজার থানার মহেশপুর বাজারের নিকটবর্তী রহিম মেম্বারের বাড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, মহেশপুর এলাকার সোবহানের ছেলে মানিক বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে বাসায় অসুস্থ হয়ে থাকার কারনে তাকে দেখে আসার পথে মহেশপুর বাজারের নিকটবর্তী রহিম মেম্বারের বাড়ির সামনে আসলে সাবেক এমপি ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুনের সমর্থক ওই এলাকার রহিম মেম্বারের নেতৃত্বে সামেদ, খোরশেদ, রহমান, শহিদ, রশিদ, রাসেল, কাশেম, মাওলা, সাত্তার, তোতা মিয়া, রাসেল, মতিন, কলি মোল্লাসহ একাধিক লোক দলবল বেঁধে এ হামলা করে। এ ঘটনায় অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে।
আহতরা হলেন- কুমিল্লা মুরাদনগর উপজেলার পূর্বধইর পশ্চিম ইউনিয়নের নোয়াব সরকারের ছেলে অবঃ বিজিবি সদস্য খোরশেদ আলম সরকার (৬০), একই এলাকার রব্বান সরকারের ছেলে মানিক সরকার (৫৫), মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে আবদুর রহমান (৫৫), মৃত আবদুল মজিদের ছেলে কবির হোসেন (৫০), মৃত কুসুম সরকারের ছেলে দেলোয়ার সরকারসহ (৪৫) অনেকেই। গুরুতর আহতদের কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এ নিয়ে সাবেক ও বর্তমান এমপি সমর্থকদের মধ্যে চরম উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে। যে কোনো মুহুর্তে আরও সংঘর্ষের আশঙ্কা করা হচ্ছে। এলাকায় এখন থম থমে অবস্থা বিরাজ করছে। বর্তমান এমপি জাহাঙ্গীর সরকারের সমর্থিতদের র্শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানা গেছে।
এ ঘটনায় আহত অবঃ বিজিবি সদস্য খোরশেদ আলম সরকার বলেন, আমাদের এমপি জাহাঙ্গীর সরকারের এক কর্মী অসুস্থ, তাকে দেখতে আমরা ক’জন বাঙ্গরা থানার মহেশপুর বাজারের নিকটবর্তী রহিম মেম্বারের বাড়ির সামনে গেলে সাবেক এমপি ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুনের সমর্থক ওই এলাকার রহিম মেম্বারের নেতৃত্বে একাধিক লোক নিয়ে দলবল বেঁধে আমাদের উপর হামলা করে। আমরা এর সুষ্ঠু বিচার চাই।
হামলার বিষয়ে সাবেক এমপি ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুনের সমর্থক রহিম মেম্বারের মুঠোফোনে কল দিলে ওনার ভাগিনা জাহাঙ্গীর বলেন, মেম্বারের অবস্থা তেমন ভালোনা। ডাক্তার কুমেক হাসপাতাল থেকে এখন ঢাকায় রেফার করছে। শুধু ওনি নয় ওনার পরিবারের সবাইকে দা-ছুরি দিয়ে কুপাইছে।
বাঙ্গরা বাজার থানার অফিসার ইনচার্জ রিয়াজ উদ্দিন চৌধুরী বলেন, হামলার পর ঘটনাস্থল পুলিশ পরিদর্শন করেছে। এখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।
এ বিষয়ে মুরাদনগর আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য জাহাঙ্গীর সরকার ও সাবেক সংসদ সদস্য ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুনের মুঠোফোনে একাধিকবার কল দিলে রিসিভ করেনি।