কুমিল্লায় সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় ইঞ্জি. আবদুস সবুর

ইনশাআল্লাহ মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী
এম. হাসান ।।
প্রকাশ: ৭ মাস আগে

কুমিল্লা-১ (দাউদকান্দি ও তিতাস) আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রার্থী ও কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আবদুস সবুর বলেছেন, আমি দীর্ঘ দিন ধরে দাউদকান্দি ও তিতাস উপজেলার জনগনের জন্য কাজ করে আসছি। আমি আমার নেত্রীর কাছে এবার মনোনয়ন চাইব। ইনশাআল্লাহ মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে এবার আমি শতভাগ আশাবাদী। কারণ, কুমিল্লা ১ সংসদীয় আসনের দলের তৃণমূল পর্যায় থেকে শুরু করে বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা আমার সাথে রয়েছেন। পাশাপাশি এলাকার সাধারণ জনগন মনে করেন, আমি তাদের আশা আকাঙ্খা পূরন করতে পারব। যার কারণে বর্তমানে আমার গণসংযোগগুলোতে দল মত নির্বিশেষে সর্বস্তরের মানুষ অংশগ্রহন করছেন।
গতকাল সন্ধ্যায় কুমিল্লা ইঞ্জিনিয়ার ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে কুমিল্লার কর্মরত সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।
সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা আমাকে আগামী নির্বাচনে কুমিল্লা ১ আসন থেকে দলীয় মনোনয়ন দিবেন বলে আশা করি। আমি দীর্ঘদিন ধরে দাউদকান্দি ও তিতাস উপজেলার দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের সাথে কাজ করেছি । তাদের সুখে দুঃখে পাশে ছিলাম।
ইঞ্জিনিয়ার আবদুস সবুর বলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ১৯৪৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠার পর থেকে সবসময় নৌকার পক্ষে কাজ করেছি। আমি বিশ্বাস করি দাউদকান্দি ও তিতাস উপজেলা ছাত্রলীগ, যুবলীগসহ সকল অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা আমার পাশে থাকবে।
তিনি আরো বলেন প্রতিটি মানুষের জীবনেই একটা স্বপ্ন থাকে আমারও স্বপ্ন দাউদকান্দি ও তিতাস উপজেলা কে মডেল উপজেলা হিসেবে গড়ে তোলা । আমি একজন প্রকৌশলী , দেশের ৯০ ভাই প্রকৌশলী দেশের উন্নয়ন কাজের সাথে জড়িত। আমি ছাত্র রাজনীতি শুরু করি প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে, আমি কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদস্য ছিলাম ।
দাউদকান্দি ও তিতাস উপজেলার কার মনোরম পরিবেশ তৈরি করতে মেডিকেল কলেজ, ভোকেশনাল ইনস্টিটিউট, ফিশারিজ একাডেমি পলিটেকনিক্যাল ইনস্টিটিউ ট এবং আইটি ভিলেজ করার পরিকল্পনা করেছি ।
তিনি আরো বলেন মানুষের জীবন যাত্রার মান উন্নয়ন করার জন্য গৌরীপুরকে মডেল পৌরসভা ঘোষনা করব । দাউদকান্দি যেহেতু নদী এলাকা এখানে নদী বন্দর তৈরি করব এবং গৌরীপুর মোড়ে দৃষ্টিনন্দন ফ্লাইওভার ব্রিজ করব এবং আগামী ১০০ বছরের পরিকল্পনা করে দাউদকান্দি ও তিতাস উপজেলাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করব ।
ঢাকা থেকে দাউদকান্দির দূরত্ব ৪৭ কিলোমিটার আমি দাউদকান্দি কে এমন ভাবে তৈরি করব যেন মানুষ দাউদকান্দিতে বসবাস করে ঢাকা শহরের সকল সুযোগ সুবিধা ভোগ করতে পারে ।
দাউদকান্দি ও তিতাস উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, শ্রমিক লীগ ,কৃষক লীগ, তাঁতী লীগ, ছাত্রলীগ, মহিলা লীগ সবাই আমার সাথে কাজ করবে বলে আমি আশা রাখছি ।
এ সময় ইঞ্জিনিয়ার আবুল বাশার, ইঞ্জিনিয়ার জুনায়েদ আনোয়ার, ইঞ্জিনিয়ার আবদুল কালাম আশ্রাফি, ইঞ্জিনিয়ার মো. মনিরুজ্জামান, ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ আবদুল মতিন এবং কুমিল্লা উত্তরের দলীয় বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।