দুই কৃষকের ধান কেটে ঘরে পৌঁছে দিল ছাত্রলীগ

নোয়াখালী
স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১ মাস আগে

নোয়াখালীর সদর উপজেলায় প্রচণ্ড গরমে শ্রমিক সংকটে অসহায় দুই কৃষকের ৫৫ শতাংশ জমির পাকা ধান কেটে ঘরে পৌঁছে দিয়েছেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

রোববার (২১ এপ্রিল) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত দাদপুর ইউনিয়নের হাকিমপুর গ্রামের কৃষক জসিম উদ্দিন ও মাসুদ মিয়ার ক্ষেতে ওই ধান কাটা হয়। এতে ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতা ইকবাল হোসেনের নেতৃত্বে ২০ নেতাকর্মী অংশ নেন।

কৃষক জসিম উদ্দিন বলেন, ‘উর্ধ্বগতির বাজারে শ্রমিক সংকট আমাদের বিপর্যস্ত করে তুলেছিল। তার ওপর চলছে প্রচণ্ড দাবদাহ। সব মিলিয়ে প্রায় ২৫ শতাংশ জমির পাকা ফসল নষ্ট হচ্ছিল। এসময় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা নিজ উদ্যোগে এসে আমার ধান কেটে দিয়েছে। আমি তাদের কাজে অত্যন্ত খুশি।

অন্যদিকে কৃষক মাসুদ মিয়া  বলেন, ‘ধারদেনা করে নিজের ৩০ শতাংশ জমিতে এবার বোরো ধানের চাষ করেছি। সার, বীজ ও কীটনাশকের বাড়তি দামের কারণে খরচ অনেক বেশি হয়েছে। পাকা ধানগুলো ঘরে তোলা নিয়ে চিন্তায় ছিলাম। গরমের কারণে শ্রমিকরা কাজ করতে রাজি হচ্ছিল না। এমন দুঃসময়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা এসে আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছে। আমার পরিবারের পক্ষ থেকে তাদের ধন্যবাদ জানাই।

ছাত্রলীগ নেতা ইকবাল হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, ‘কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশনা অনুযায়ী ক্ষেতের পাকা ধান নিয়ে বিপাকে পড়া কৃষকের পাশে দাঁড়িয়েছি আমরা। যতদিন শ্রমিক সংকট থাকবে আমরাও ততদিন কৃষক ভাইদের পাশে থাকবো।

জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শামছুল হুদা বাপ্পি বলেন, ‘অসহায় কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দেওয়া ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের ধন্যবাদ জানাই। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ দেশের যে কোনো দুর্যোগ, দুঃসময়ে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। আগামীতেও সাধারণ মানুষের পাশে থাকবো আমরা।’