দেবিদ্বারে প্রতিবন্ধী কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগে যুবক আটক

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ২ মাস আগে

কুমিল্লার দেবিদ্বারে ১৫ বছর বয়সী এক মানসিক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে সোহাগ মিয়া নামে এক যুবককে আটক করেছে দেবিদ্বার থানা পুলিশ।
ঘটনাটি ঘটে রোববার সকাল অনুমান ১১টায় দেবিদ্বার পৌর এলাকার চান্দিনা সড়কের ডা. জসিম উদ্দিন হাড়ভাঙ্গা ও পঙ্গু হাসপাতাল সংলগ্ন এনায়েত উল্লাহ হুজুরের বাড়ির ভাড়া বাসায়। ধর্ষক এবং ধর্ষিত প্রতিবন্ধী কিশোরীর পরিবার একই মালিকের বাসায় পাশা পাশি ঘরে ভাড়া থাকেন। ধর্ষক সোহাগ মিয়া প্রতিবন্ধী কিশোরীকে বাসায় একা পেয়ে ধর্ষণ করে।
রোববার সন্ধ্যায় সংবাদ পেয়ে দেবিদ্বার থানার এসআই আব্দুল কাদের একদল পুলিশ নিয়ে অভিযান চালিয়ে ঘটনাস্থল থেকে উপজেলার শাকতলা গ্রামের মোঃ ইউনুছ মিয়ার ছেলে গাড়ি চালক মোঃ সোহাগ মিয়া(৩৪)’কে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। সোহাগ ইতিমধ্যে ৪টি বিয়ে করেছে। বর্তমানে ২ বৌ এর একজন থাকে গ্রামের বাড়িতে, আর একজন দেবিদ্বার ভাড়া বাসায়।
ওই ঘটনায় ভিক্টিমের মা (৪৫) বাদী হয়ে রোববার রাত ১০ টায় ধর্ষক সোহাগ মিয়া(৩৪)কে একমাত্র আসামি করে দেবিদ্বার থানায় নারী ও নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন, (মামলা নং-০৩, তারিখ- ০৪/১২/২০২২ইং)।
ভিক্টিমের মা জানান, তিনি প্রতিদিনের ন্যায় বুয়ার কাজ করতে সকালেই চলে যান। দুপুরে তার বোনের মেয়ে ফোন করে ঘটনার বিষয়ে তাকে অবগত করেন। বাসায় এসে প্রতিবন্ধী মেয়েকে জিজ্ঞাসাবাদে সে জানায় পাশের বাসার ভাড়াটিয়া সোহাগ তার ঘরে ঢোকে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।
এ বিষয়ে ভিক্টিমের বাবা রিক্সাচালক (৫০) জানান, তিনি সকাল ১১টায় রিক্সা নিয়ে বাসা থেকে বের হওয়ার সময় সোহাগ মিয়া তার ঘরে আসে। তখন তাকে বসতে বললে সে না বসে চলে যায়। তার দুই মেয়ে ভিকটিম ও তার ছোট বোন(১০)কে বাসায় রেখে তিনিও রিক্সা নিয়ে বাসা থেকে বের হয়ে যান।
ভিক্টিমের ছোটবোন(১০) জানায়, তার বাবা চলে যাওয়ার পর সেও বাজারে যায়। ঘরে এসে দেখে সোহাগ তার বোনের সাথে অনৈতিক কাজে লিপ্ত রয়েছে। সে চিৎকার দিলে ওই সোহাগ তার ঘরের দিকে চলে যায়।
ভিক্টিম কিশোরী (১৫) জানায় তার ছোট বোন বাজারে গেলে সোহাগ তাদের ঘরে প্রবেশ করে তার মুখ চেপে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। তার ছোটবোন চলে আসালে সোহাগ তার ঘর থেকে পালিয়ে যায়।
সোমবার বিকেল ৪টায় দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ কমল কৃষ্ণ ধর জানান, এ বিষয়ে থানায় মামলা হয়েছে। ধর্ষণের ঘটনায় তাৎক্ষণিকভাবে একজনকে আটক করে সোমবার দুপুরে কোর্ট হাজতে চালান করা হয়েছে। একই সাথে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ভিক্টিমকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।