বিজয়া দশমীতে সিঁদুর খেলায় মেতেছে রমনীরা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি
প্রকাশ: ২ মাস আগে

আজ শুভ বিজয়া দশমী। ত্রিনয়নী দেবী দুর্গার বিদায়ের বেলায় ভক্তদের মাঝে সর্বত্র বিষাদের সুর লক্ষ্য করা গেছে। পাশাপাশি আজকের দিনে দুর্গাদেবী মহিষাসুরকে পরাজিত করে বিজয় অর্জন করায় বিজয়ের আনন্দে মেতে উঠেছে ভক্তরা।

একদিকে বিদায়ের বেদনা অন্যদিকে বিজয়ের আনন্দে বিজয়া দশমী পূজা উদযাপন করছে ভক্তরা। পুরোহিতের বিদায়ী প্রণাম মন্ত্রের মাধ্যমে সকাল ১০টার দিকে দর্পন বিসর্জন করা হয়। এরমধ্য দিয়ে মা-দুর্গাকে আনুষ্ঠানিক বিদায় জানানো হয়। বিদায় লগ্নে অনেক ভক্তরা অশ্রুশিক্ত নয়নে কান্নায় ভেঙে পড়েন।

জেলা শহরের রামঠাকুর ক্লাব, গগন সাহার বাড়ি রোড সার্ব্বজনীন পূজা মণ্ডপ এবং টাউন সার্ব্বজনীন পূজা মণ্ডপে সিঁদুর খেলায় অংশ নেয় রমনীরা।

এ সময় গগন সাহাবাড়ি পূজা মণ্ডপে উপস্থিত সম্পা সাহা, দিপ্তী সাহা, ঈশিতা চক্রবর্তী জানান, তারা দেবী দুর্গা মায়ের কাছে প্রার্থনা করেছেন, মা-যেন স্বামী সংসারে সবাইকে সুখে শান্তিতে রাখেন প্রতিটি মুহূর্ত। দেশের প্রতিটি মানুষ যেন সুখে শান্তিতে থাকে সেই প্রার্থনাও করেছেন তারা।

একই কথা জানান জেলা শহরের রামঠাকুর ক্লাবের পূজা মণ্ডপে সিঁদুর খেলায় অংশ নেয়া তমা সূত্রধর, কানন সাহা, জয়া সাহা, অনিতা রায়।

তারা জানান, মায়ের বিদায়ের সুরে যেমন কষ্ট হচ্ছে, তেমনি আবার আসবে বলে মনে শান্তনা পাচ্ছি। এরই মাঝে আগামী এক বছর স্বামী সংসারে যেন ভালো থাকি সেই প্রার্থনা করছি। পাশাপাশি সিঁদুর খেলার মাধ্যমে আমাদের প্রত্যাশা মা-আমাদেরকে সুখে শান্তিতে রাখবেন। পরে সুখ শান্তির প্রত্যাশায় একে অপরকে সিঁথিতে সিঁদুর পরিয়ে দেন। এ সময় সিঁদুরের আলতা রঙে সবাইকে রাঙিয়ে তোলেন পুরো মুখমণ্ডল।

এদিকে জেলা শহরের গগন সাহার বাড়ি পূজা মণ্ডপের পুরোহিত কৃষ্ণ চক্রবর্তী ও নান্টু চক্রবর্তী জানান, দেবী দুর্গা অশুভ শক্তি অসুরকে দশম দিনে পরাজিত করে। সেটি পৌরানিক কাহিনীতে বিস্তারিত বর্ণনা করা আছে। আজ বিজয়া দশমীতে হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রতিটি ভক্তকূলে বিজয়ের আনন্দ বিরাজ করছে। অন্যদিকে মায়ের বিদায়ের কালে প্রতিটি ভক্তের মনে বিষাদের বেদনা বিরাজ করছে। সকালে দর্পন বিসর্জনের মধ্যদিয়ে শেষ হয় মূল আনুষ্ঠানিকতা। এরমধ্যে দিয়ে ভক্তদের আশীর্বাদ করে দেবী দুর্গা নৌকায় করে আবারো ফিরে গেছেন কৈলাসে স্বামী গৃহে। অপেক্ষা আবারো এক বছর পর তিনি ফিরে আসবেন ভক্তদের মাঝে।