মাদকের পাওনা টাকার জন্য হত্যা করা হয় ইজাজুলকে : ২ ঘাতকসহ ৪ জন গ্রেফতার

কুমিল্লা নগরীতে ইজাজ হত্যার রহস্য উ˜্ঘাটন
স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১১ মাস আগে

কুমিল্লা নগরীর কেন্দ্রস্থল কান্দিরপাড়ে প্রকাশ্যে ইজাজুলকে হত্যার ঘটনায় দুই ঘাতকসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান, কুমিল্লা সদর দক্ষিণ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামরান হোসেন। মাত্র ১৯ দিনের ব্যবধানে চাঞ্চল্যকর এই হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন করল পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত আসামিরা হলেন, কুমিল্লার ক্যান্টনমেন্ট এলাকার মো. মহরম মিয়া, কুমিল্লা নগরীর বর্জ্যপুর এলাকার পারভেজ, বারপাড়া এলাকার মো. ইয়াসিন ও মুরাদপুর এলাকার রুপা আক্তার। এর আগে আরো দুই আসামি দুলাল ও হোসেন মিয়াকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ নিয়ে এই ঘটনায় মোট ছয়জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই ঘটনায় ইজাজুলার বাবা সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে নয়জনকে এজাহারনামীয় আসামিসহ অজ্ঞাতদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. কামরান হোসেন জানান, আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, ইজাজুল আসামি শারমিন ও রুবেলের কাছে মাদক বিক্রির টাকা পাওনা ছিল। এই টাকা লেনদেন সংক্রান্ত কথাবার্তা বলতেই ২৫ জুন সন্ধ্যায় কান্দিরপাড় ডাকা হয় ইজাজুলকে। এ সময় মহরম ও পারভেজসহ অন্যান্যরা ইজাজুল কে ঘিরে ধরে ফুটপাতের উপর নিয়ে গিয়ে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে। আসামি মহরমের বিরুদ্ধে চুরি ডাকাতি মাদকসহ মোট ১৪ টি মামলা, পারভেজের বিরুদ্ধে চুরি ডাকাতিসহ পাঁচটি মামলা এবং ইয়াসিনের বিরুদ্ধে মাদকের তিনটি মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

পুলিশ কর্মকর্তা কামরান হোসেন জানান, হত্যাকান্ড সংগঠিত করার পর তারা কক্সবাজারের সুগন্ধা বিচ এলাকায় পালিয়ে থাকে তারা। পরে পুলিশের অভিযানে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।