মাদক নিরাময় কেন্দ্রে রোগীর রহস্যজনক মৃত্যু

ফেনী প্রতিনিধি ।।
প্রকাশ: ২ মাস আগে

ফেনীতে নিউ আরশী নামে একটি মাদক নিরাময় প্রতিষ্ঠানে (রিহ্যাবিটেশন সেন্টার) লিটন (৪৫) নামে এক রোগীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে এ ঘটনার পর ওই রিহ্যাবিটেশন সেন্টার থেকে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে লিটনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানানো হয়।

তবে পরিবারের দাবি, তাকে হত্যা করা হয়েছে।

নিহত লিটন কুমিল্লা জেলার হোমনা উপজেলার শ্যামনগর এলাকার ব্যাপারী বাড়ির হোসেন মিয়ার ছেলে। তিনি বিগত দুই দশক ধরে পরিবার নিয়ে ফেনীর মহিপাল এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। শহরতলীর পাগলা মিয়া সড়কস্থ তিনি একটি ভাঙারি দোকান পরিচালনা করে আসছিলেন।

নিহত লিটনের স্ত্রীর রুমা বেগম জানান, লিটন দীর্ঘদিন থেকে মাদকাসক্ত ছিলেন। গত বছরের ২৭ নভেম্বর থেকে তাকে ৩ মাসের জন্য নিউ আরশী রিহ্যাবিটেশন সেন্টারে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়।

তিনি জানান, মঙ্গলবার দুপুরের পর রিহ্যাবিটেশন সেন্টার থেকে কল দিয়ে আমাকে বলা হয়, লিটন বাথরুমে গিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। পরে ব্যর্থ হয়ে অজ্ঞান হয়ে যান। খবর নিয়ে জানতে পারি, আমার স্বামীকে তারা নির্যাতন করে হত্যা করেছেন। ঘটনার পর থেকে রিহ্যাবিটেশন সেন্টারের লোকজন লিটনের মৃত্যুর বিষয়ে নানা রকম কথা বলছেন।

নিউ আরশী মাদকাসক্ত নিরাময় প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম জসিম জানান, লিটন আমাদের পুরোনো রোগী। ৪০ দিন আগে তার স্ত্রী এসে তাকে পুনরায় চিকিৎসার জন্য ভর্তি করিয়ে যান। মঙ্গলবার সেন্টারের বাথরুমে গামছা দিয়ে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় লিটনকে অন্য রোগীরা উদ্ধার করেন। লিটন আমাদের প্রতিষ্ঠানের সেবা গ্রহীতা। তাকে হত্যার প্রশ্নই ওঠে না।

ফেনী মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, রিহ্যাবিটেশন সেন্টারে ওই ব্যক্তির মৃত্যুর পর মরদেহ ফেনী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। কী কারণে তার মৃত্যু হয়েছে তা ময়নাতদন্তের পর জানা যাবে।