সরকারকে সরানোর জন্য গণঅভ্যুত্থানের বিকল্প নাই—শওকত মাহমুদ 

ইনসাফ কায়েম কমিটির দারিদ্র্য ও ইনসাফ শীর্ষক আলোচনা সভা
স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১১ মাস আগে

স্টাফ রিপোর্টার।।
নিম্নবিত্ত বলুন, মধ্যবিত্ত বলুন কেউ আজ ভালো নেই। সরকারের খেয়াল গদি বাঁচানোর দিকে, সরকারের খেয়াল লুটপাটের দিকে। এ সরকারকে সরানোর জন্য গণঅভ্যুত্থানের বিকল্প নাই। আমরা নির্বাচন অন্তর্বর্তীকালীন একটি সরকার চাই। যে সরকারের অধীনে শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হবে।  সোমবার (১০ এপ্রিল) রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে জাতীয় ইনসাফ কায়েম কমিটির দারিদ্র্য ও ইনসাফ শীর্ষক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন কমিটির সদস্য সচিব সাংবাদিক নেতা শওকত মাহমুদ। 
জাতীয় ইনসাফ কায়েম কমিটির আহ্বায়ক কবি ফরহাদ মজহারের সভাপতিত্বে সাংবাদিক নেতা জাহাঙ্গীর আলম প্রধানের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন গণঅধিকার পরিষদের আহ্বায়ক ড. রেজা কিবরিয়া, নির্বাচন পর্যবেক্ষক সংস্থা জানিপপ চেয়ারম্যান ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, দিগন্ত মিডিয়ার চেয়ারম্যান শিব্বির মাহমুদ, সাংবাদিক আব্দুল আউয়াল ঠাকুর, ড. ফরহাত হোসেন খন্দকার, নেজামে ইসলাম পার্টির নির্বাহী সভাপতি একেএম আশরাফুল হক প্রমুখ।
জাতীয় ইনসাফ কায়েম কমিটির আহ্বায়ক লেখক, কবি ফরহাদ মজহার বলেছেন, রাষ্ট্রীয় সব আইন মানলে গণঅভ্যুত্থান হবে না। সেটা ৬০ দশকে আমরা দেখেছি। শেখ মুজিবুর রহমানও রাষ্ট্রীয় আইন অমান্য করে গণঅভ্যুত্থান করেছেন। আমরা ওনার থেকেই গণঅভ্যুত্থান শিখেছি। আমরা নতুন করে রাষ্ট্র গঠন করতে চাই।