কুমিল্লায় ঘর পাবে ১৭৯০ টি অসচ্ছল পরিবার

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১২ মাস আগে

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার মামুন শেখ, তুফুরা,রহিম সর্দারসহ শ’ শ’ দিনহীন, ভূমিহীন, গৃহহীন মানুষ। নামের মতোই বেদনার্ত তাদের জীবন। কারও নেই স্থায়ীভাবে ঘুমানোর ঠিকানা ও। সবার নুন আনতে পান্তা ফুরোয়।
এই তিন পরিবারের বিগত ৪০ বছর ধরেই সরকারী খাস জমি কিংবা পরের পরিত্যক্ত জমিতে ভাসমান হয়ে কোনভাবে মাথা গুঁজে দিন কাটে তাদের। তার ওপর যখন তখন উচ্ছেদের ভয়। হাত পেতে কিংবা স্বল্প টাকায় মাঠে-ঘাটে কাজ করে নিজের সংসার চালানোই দায়।
সেখানে একখন্ড জমি কিনে বাড়ি করা- তা যেন ‘মাটিতে থেকে চাঁদ ছোঁয়া’র মতো অলিক কল্পনা, স্বপ্নাতীত। জীবনের পড়ন্ত বেলায় এসে অনেকটাই দূর হচ্ছে তাদের আক্ষেপ।

কারণ মাত্র ক’দিন ( ২২ মার্চ) পরই পাচ্ছেন নিজস্ব ঠিকানা। সবার সামনে এখন বিনামূল্যে দুই শতাংশ ভূমি মালিকানাসহ পাকা বাড়ি পাওয়ার স্বপ্ন। এমন প্রাপ্তির আনন্দ-উচ্ছ্বাস এখন দিনহীন কুমিল্লার প্রায় ১৭৯০ টি অসচ্ছল পরিবার। গৃহহীনরা তাদের স্বপ্নের পূর্ণতা পাওয়ার অপেক্ষার প্রহর গুনছে।
সারাদেশের ন্যায়ে কুমিলায় ১৭ উপজেলায় ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবারকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারী খরচে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে উপহার দিচ্ছেন ‘স্বপ্নের নীড়’, দুই শতক জমির মালিকানাসহ সুদৃশ্য পাকা বাড়ির স্থায়ী ঠিকানা।
সোমবার (২০ মার্চ) জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে শেখ হাসিনার উপহার’ স্লোগানকে সামনে রেখে মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ৪র্থ ও ৩য় পর্যায়ের অবশিষ্ট গৃহ ও জমি প্রদান কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় কুমিল্লা জেলা প্রশাসন মোহাম্মদ শামীম আলম বলেন, আগামী ২২ মার্চ জেলার ১৭ টি উপজেলায় মোট ১৭৯০ টি একক গৃহ উদ্বোধন করা হবে। এর মধ্যে, আদর্শ সদরে ৮৬ টি, সদর দক্ষিণে ১৬০ টি, চৌদ্দগ্রামে ১২৪ টি, নাঙ্গলকোটে ৮০ টি, লাকসামে ৭২ টি, মনোহরগঞ্জে ১১২ টি, লালমাইয়ে ৪৮ টি, বরুড়ায় ৭৮ টি, চান্দিনায় ১০৩ টি, দাউদকান্দিতে ১৩০ টি, মেঘনায় ৭৪ টি, তিতাসে ৮৪ টি, হোমনায় ৫৭ টি, মুরাদনগরে ১১৫ টি, দেবিদ্বারে ১৫০ টি, ব্রাহ্মণপাড়ায় ৯৯ টি, বুড়িচংয়ে ৯৯ টি।
এসময় তিনি আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এই প্রকল্পকে প্রধান দায়িত্ব হিসেবে নিয়েছেন। আমরা সকলের সহায়তায় এই প্রকল্পকে বাস্তবায়ন করবো। এক্ষেত্রে আমরা কিছু বাঁধার সম্মুখীন হলেও, সকলের সহায়তায় আমরা তা কাটিয়ে উঠছি। শুভ উদ্বোধনের এই পর্যায়ে চৌদ্দগ্রাম, লাকসাম, মনোহরগঞ্জ, চান্দিনা, লালমাই ও ব্রাহ্মণপাড়া সহ মোট ৬ টি উপজেলাকে ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা করা হবে।
এসময় আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রাজস্ব মোহাম্মদ কাবিরুল ইসলাম খান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আদর্শ সদর কানিজ ফাতেমা, রেভেনিউ ডেপুটি কালেক্টর উত্তম কুমার দাস সহ আরো অনেকে।