নাঙ্গলকোটে ইউএনও’র বিরুদ্ধে স্থানীয়দের মানববন্ধন

আদালতে বিচারাধীন বিষয়ে অবৈধ হস্তক্ষেপ
নাঙ্গলকোট প্রতিনিধি ।।
প্রকাশ: ১১ মাস আগে

কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মূল ফটকের ২টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ২৫ বছর পূর্বে সংযোগ দেয়া বৈদ্যুতিক মিটার ক্ষমতার অপব্যবহার করে খুলে নেয়ার অভিযোগে নাঙ্গলকোট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মানববন্ধন করে ভূক্তভোগী ব্যবসায়ী ও স্থানীয়রা। বুধবার সকালে নাঙ্গলকোট-লাকসাম সড়কে শত-শত লোকের অংশগ্রহণে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
মাববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, স্থানীয় এ.কে.এম শাহরিয়ার নাদিম, আবু তাহের, ফরহাদ হোসেন, ইমরান হোসেন, মাঈন উদ্দিন, রিফাত হোসেন, প্রান্থ মজুমদার, বেল্লাল হোসেন, আফছার হোসেন, নুরুজ্জামান, নাঈম বিন মান্নান, ফখরুল ইসলাম প্রমূখ।
মানববন্ধনে ভূক্তভোগী দোকান মালিক ব্যবসায়ী এ কে এম আশরাফুল আলম উজ্জ্বল বলেন, নাঙ্গলকোট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মূল ফটকে আমার পিতা মরহুম এ.কে.এম মাস্টার শাহজাহান ২ শতক জমি ক্রয় করে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নির্মাণ করে। ওই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ২৫ বছর পূর্বে আমার পিতা নিজ নামে একটি বৈদ্যুতিক মিটার নিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করে। আমার পিতার মৃত্যুর পর আমরা ওই দোকান ঘর গুলো পৈত্রিক সূত্রে মালিক হয়ে ভাড়া দিয়ে আসছি। একটি পক্ষ বিগত কিছু দিন যাবৎ আমাদের ওই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানর ৩টি দোকানের একটি জোর পূর্বক দখল করে ও আমার নির্মাণাধীন নাঙ্গলকোটের মেগা প্রকল্প ম্যাক টাওয়ারের ৬ টন রড চুরি করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় সিসিটিভি ফুটেজ সহ আমি কুমিল্লার আদালতে ৪টি মামলা দায়ের করি। গত কয়েক দিন পূর্বে আমাদের দোকান জবর দখলকারীরা ওই দোকানের জন্য বিদ্যুতিক মিটারের জন্য নাঙ্গলকাট পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে আবেদন করলে আমি জানতে পেরে দখলদারদেরকে মিটার না দেয়ার জন্য আবেদন করি। এ বিষয়কে কেন্দ্র করে গত ১৫ মার্চ বুধবার বিকাল আনুমানিক ৪টার দিকে ব্যক্তিগত স্বার্থে আদালতে বিচারাধীন বিষয়ে অবৈধ ভাবে হস্তক্ষেপ করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রায়হান মেহেবুব সরজমিনে বিদ্যুত অফিসের লোকদের নিয়ে গিয়ে নিজে উপস্থিত থেকে আমাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের বিদ্যুত লাইন কেটে মিটার খুলে নিয়ে যায়। আমি নির্বাহী অফিসার রায়হান মেহেবুবের ক্ষমতার অপব্যবহারের তীব্র নিন্দা ও আমার বৈদ্যুতিক মিটারের পুনঃসংযোগ পেতে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের উর্দ্বতন কতর্ৃৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।